সৌরভ-জয়ের ‘ভাগ্য নির্ধারণ’ আবার পেছাল

অনলাইন ডেস্ক :

ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের প্রেসিডেন্ট সৌরভ গাঙ্গুলি আর সেক্রেটারি জয় শাহর মেয়াদ বৃদ্ধি হবে কি হবে না তা জানতে আরো এক সপ্তাহ অপেক্ষা করতে হচ্ছে। সুপ্রিম কোর্টের শুনানি পিছিয়ে গেছে। পরবর্তী শুনানি এক সপ্তাহ পরে। ২৮ জুলাই। অর্থাৎ পরের বৃহস্পতিবার (২১ জুলাই)। যাতে কুলিং অফ পিরিয়ডের নিয়মের আওতার বাইরে থেকে সৌরভ গাঙ্গুলি ও জয় শাহ নিজেদের পদে বহাল থাকতে পারেন, তাই সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছে বিসিসিআই। আগামী সেপ্টেম্বরে সৌরভ এবং জয় শাহর মেয়াদ ফুরানোর কথা। আগেই বিসিসিআই এই আবেদন করেছিল। কিন্তু প্রথমে করোনার কারণে শুনানি পিছিয়ে যায়। তার পরও বিষয়টি ঝুলেই ছিল। সম্প্রতি বিসিসিআইয়ের পক্ষ থেকে দেশটির শীর্ষ আদালতকে এ বিষয়ে দ্রুত পদক্ষেপ গ্রহণের অনুরোধ জানানো হয়েছিল। তার শুনানি ছিল বৃহস্পতিবার (২১ জুলাই)। প্রধান বিচারপতি এন ভি রামানা, বিচারপতি কৃষ্ণ মুরারী ও হিমা কোহলির বেঞ্চ এর শুনানি পিছিয়ে দেন। বিসিসিআই নিজেদের সংবিধান সংশোধন করে সৌরভ-জয়কে স্বপদে বহাল রাখতে চায়। তবে পুরো বিষয়টিই নির্ভর করবে সুপ্রিম কোর্টের রায়ের ওপর। লোধা কমিটির সুপারিশে বলা হয়েছিল, একটানা কেউ বিসিসিআই ও রাজ্য সংস্থার ক্রিকেট প্রশাসনে থাকলে তাকে ছয় বছর পর বাধ্যতামূলক তিন বছরের কুলিং অফে যেতে হবে। কিন্তু বোর্ড সভাপতি বা সচিব পদে কুলিং অফের নিয়মটি তুলে দিতে চায় বিসিসিআই, যা সুপ্রিম কোর্টের অনুমতি ছাড়া সম্ভব নয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *