কুলাউড়ায় সন্ত্রাসী ঘটনাকে আড়াল করতে নির্যাতিত ও প্রবাস ফেরতদের বিরুদ্ধে পাল্টা মামলা

কুলাউড়া প্রতিনিধি : মৌলভীবাজারের কুলাউড়ায় সন্ত্রাসী ঘটনাকে আড়াল করতে শিক্ষানবীশ আইনজীবিসহ প্রবাস ফেরত ভাইদের বিরুদ্ধে সাজানো ও হয়রানি মূলক মিথ্যা মামলা দায়ের করার অভিযোগ উঠেছে। উপজেলার শরীফপুর ইউনিয়নের চানপুর গ্রামে গত বছরে সন্ত্রাসী হামলায় রক্তাক্ত জখমপ্রাপ্ত হন আবুল হোসেন। সন্ত্রাসী এই ঘটনাকে আড়াল করতে গত ১১ জুলাই একটি সাজানো ঘটনা দেখিয়ে পাল্টা মামলা দায়ের করা হয়। ২৪ জুলাই রোববার দুপুরে সাংবাদিক সমিতি কমলগঞ্জ ইউনিটের শমশেরনগরস্থ কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে পাল্টা মামলা দায়েরের এ অভিযোগ করা হয়।
সংবাদ সম্মেলনে লিখিত অভিযোগে শিক্ষানবীশ আইনজীবি আবুল হোসেন বলেন, শরীফপুর ইউনিয়নের চানপুর গ্রামের হাবিবুর রহমান শিপু (২৫), খিদিরপুর গ্রামের সজিব মিয়া (৩৫), হরিপুর গ্রামের সিয়াম আলী (১৮), আল আমীন (২২), লালারচক গ্রামের আমির হামজা (২৫), শরীফপুর গ্রামের বেলাল আহমদ (২২) গত বছরের ১৫ মে রাতে খেলোয়াড় কল্যাণ সমিতির মিটিং শেষে বটতলা বাজার হতে মোটরসাইকেল যোগে বাড়িতে আসার রাস্তার উপর আমাদের গতিরোধ করে। পরে সন্ত্রাসীরা আমাদের উপর দা, লোহার রড ও রামদা দিয়ে মাথায় কূপিয়ে গুরুতর রক্তাক্ত জখম করে। সন্ত্রাসীরা এলোপাথারিভাবে পিটিয়ে আমার ডানহাতের কনিষ্টা আঙ্গুল ভেঙ্গে জখম ও বাম হাতসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে জখম করে। স্থানীয়রা আমাকে উদ্ধার করে কুলাউড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও পরে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল স্থানান্তর করেন। এ ঘটনায় আবুল হোসেনের চাচাতো ভাই মো. আলফাজ মিয়া বাদি হয়ে গত বছরের ১৭ মে ৭ জনকে আসামী করে কুলাউড়া থানায় মামলা দায়ের করেন।
মামলা দায়েরের পর হতেই আসামীরা মামলা প্রত্যাহারসহ প্রাণনাশের হুমকি প্রদান করছে। তাদের ভয়ে আবুল হোসেন গত ২০ জুলাই কুলাউড়া থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করেন। এরই মধ্যে মামলার প্রধান আসামী হাবিবুর রহমান শিপু জেলহাজত থেকে জামিনে এসে আবুল হোসেন ও প্রবাস ফেরত তার দুই ভাইকে আসামী করে গত ১৭ জুলাই মিথ্যা ও উদ্দেশ্য প্রণোদিত একটি পাল্টা মামলা দায়ের করায়। তাদের মামলার এজাহারে বর্ণিত ঘটনা বিষয়ে আমরা হতবাক। এমনকি এলাকার কেউ এমন ঘটনা বিষয়েও জানেন না। তাদের এহেন মিথ্যা ও উদ্দেশ্যপ্রণোদিত হয়রানিমূলক মামলার সুষ্ঠু তদন্ত এবং ন্যায়বিচার দাবি করেন তিনি। সংবাদ সম্মেলনে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মো. হাবিবুর রহমান, মো. আকবর আলী, সাইফুল ইসলাম প্রমুখ।
ঘটনার বিষয়ে উত্তর চানপুর জামে মসজিদের মোতওয়াল্লী হাজ্জ্বী সাদেক আলী জানান, এটি পূর্বের সন্ত্রাসী হামলা ঘটনার একটি মিথ্যা ও পাল্টা মামলা। এ ধরণের ঘটনা বিষয়ে আমরা কেউ কিছু জানি না। মিথ্যা মামলার নিন্দা জানান তিনি।
স্থানীয় ইউপি সদস্য মো. লোকমান মিয়া জানান, এধরণের ঘটনা ঘটেছে কি না তা জানা নেই। তবে বিষয়টি সামাজিকভাবে সমাধানের চেষ্টা করছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *